কেনই বা রিয়া সুশান্তের বাড়ি ছেড়েছিলেন? উত্তর দিলেন রিয়ার আইনজীবী

166

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে দিনের পর দিন উঠে আসছে নানা তথ্য। তবে এইবার বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন রিয়ার আইজীবী সতীশ মানেশিন্ডে। রিয়ার আইনজীবী বললেন যে, মৃত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের দিদি দিনের পর দিন ভুল ওষুধ দিয়ে গেছেন তাকে। তিনি আরও বলেন যে, সুশান্তের দিদি প্রেসক্রিশনটি সম্পূর্ণভাবে নকল করেছিল, যে ওষুধগুলো সুশান্তের পক্ষে সঠিক ছিল না সেই সমস্ত ওষুধগুলি দিনের-পর-দিন খাওয়ার কথা সুশান্তকে বলেছিল।

সুশান্ত যে অবসাদে ভুগছেন সেটা তার দিদি জানত, তার পরেও প্রেসক্রিপশন নকল করে কিভাবে সেই সমস্ত ওষুধ তাকে খাওয়ার কথা বলেছিলো, যেগুলো খেলে তার অবসাদ দিনে দিনে বাড়তে থাকতো। সুশান্ত যে মাদক আসক্ত পরিবারের সকলেই জানতেন এবং এও জানতেন যে ওই রকম অবস্থায় এই সমস্ত ওষুধ দেওয়া কতটা বিপদজনক হতে পারে।

সুশান্ত যেহেতু অবসাদে ভুগছিলেন সেইজন্যে তিনি একাধিক চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলেছিলেন, কিন্তু প্রত্যেক চিকিৎসক তার দিদির প্রেসক্রাইব করা ওষুধ খেতে বারণ করেছিলে। সুশান্তকে ঔষধগুলি খেতে রিয়া বারণ করেছিল কিন্তু সুশান্ত তার কথা না শোনায় রিয়া তাকে ছেড়ে সেখান থেকে চলে যায়। অবসাদগ্রস্ত সমস্যা নিয়ে সুশান্ত প্রায় মুম্বাইয়ের পাঁচজন চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। ডাক্তারের কথা অনুযায়ী সুশান্তকে সেই সমস্ত ওষুধগুলি খেতে বারবার বারণ করেছিল রিয়া, কিন্তু রিয়ার কোনো কথাই শোনেনি সুশান্ত। সেইজন্যই যখন ঝামেলা হয় সুশান্তের সঙ্গে রিয়ার তখন রিয়া চলে যায় সুশান্তের বাড়ি থেকে এবং সুশান্ত তাকে শেষ পর্যন্ত আটকায়নি বলে জানা যায়।