বড়োসড়ো জঙ্গী নাশকতা ভেস্তে দিল দিল্লি পুলিশ! গ্রেপতার ২ জইশ জঙ্গি

187

উৎসবের মুহূর্তেই ভারতে বড়োসড়ো জঙ্গী নাশকতা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল পাকিস্তানি মদতপুষ্ট কুখ্যাত জঙ্গী সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ। তবে দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের তৎপরতায় সে ভয়ংকর জঙ্গি হামলা ঠেকানো সম্ভব হলো। গতকাল রাতেই দিল্লি সরাই কালে খান অঞ্চল থেকে জইশ-ই-মোহাম্মদ জঙ্গী সংগঠনের দুই সক্রিয় সদস্যকে অস্ত্র সমেত হাতেনাতে ধরে ফেললো দিল্লি পুলিশ।

দিল্লি পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, দেশের একাধিক প্রান্তে জঙ্গী নাশকতামূলক ষড়যন্ত্র বাস্তবায়িত করার লক্ষ্য নিয়ে কুখ্যাত জঙ্গী সংগঠনগুলির সদস্যরা লুকিয়ে আছে। লোকচক্ষুর আড়ালেই চলছে নাশকতামূলক কাজের পূর্ব পরিকল্পনা। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গতকাল দিল্লির ওই অঞ্চলে হানা দেয় দিল্লি পুলিশ। সেখান থেকে ওই দুই সশস্ত্র জঙ্গীকে গ্রেপ্তার করা হয়। এদের উদ্দেশ্য ছিল, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সন্ত্রাস ছড়িয়ে দেওয়া।

শুধু তাই নয়, দিল্লি পুলিশ সূত্রে খবর, জঙ্গিরা দেশের বেশ কয়েকজন ভিভিআইপি নেতৃত্বদেরও নিশানা করে রেখেছে। কিন্তু তাদের সেই পরিকল্পনা ভেস্তে নিয়ে জইশের দুইজন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করে বেশ বড়সড় সাফল্য অর্জন করল দিল্লি পুলিশ। যে তোদের কাছ থেকে প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরকসহ আগ্নেয়াস্ত্র এবং সন্দেহজনক নথিপত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলেই খবর পাওয়া গিয়েছে।

আপাতত জানা গিয়েছে, ওই দুই জঙ্গির নাম আব্দুল লতিফ মীর ও মহম্মদ আশরাফ। দুজনের মধ্যে একজন জম্বু-কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলার বাসিন্দা এবং অপরজন বারমুল্লার বাসিন্দা। দ্রুত দুজনের বয়স আনুমানিক ২০ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। গতকাল রাত দশটার সময় সরাই কালে খান অঞ্চলের মিলেনিয়াম পার্ক থেকে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আপাতত তারা পুলিশি হেফাজতে রয়েছে এবং তাদের জেরা করা হচ্ছে।